সময় গেছে পেরিয়ে






সময় গেছে পেরিয়ে
—————বাপ্পাদিত্য বেসরা

হেমন্তের শিশির ভেজা সূর্যের আলোয় বসে কিশোর-কিশোরীর আবেগ দেখছিলাম।
সুন্দর সাজে খুশির বাতাসে
দোলায়িত হতে হতে উড়ে চলেছিল কচি সবুজ মন
কিচিরমিচির হাসির কোলাহল
যুবতীদের অঙ্গ কারুকার্য
ফেলে আসা অতীতের কোন এক
ভালোলাগার সুপ্ত স্নায়ুতে টোকা দিতে চাইছিল।

পরবের আগমনী আনন্দ
রুজির কাছে অনুঘটক হয়েছিল কদিন,
লক্ষ্য করেছি বেশ।
সন্ধ্যার জোনাকি আলোর জ্যোতি দেখতে
পাতলা চাদর গায়ে
বাইরের বেঞ্চিতে বসেছিলাম কিছুক্ষণ,
আচ্ছা, সেই বান্ধবী কি এখনো
ওরকমই ভাবে?
নাকি পাল্টে গেছে?
বিএড দ্বিতীয় বর্ষে
“প্রাক্তন” দেখেছিলাম বলে
‘বৃদ্ধ’ বলেছিল আমায়।
হয়তো আমারই বয়স হয়ে গেছে
বাকি পার্থিব প্রাণ
এখনো তরতাজা সময়ের সারণির সাথে।
আধুনিক উপভোগের স্বাদ কোরক
ক্ষয়ে জীর্ণ হয়ে গেছে আমার
ঝলমলে রঙের আবেগ
আর স্পর্শ করে না হয়তো
ব্রাত্য আমি ব্রাত্য
সময় গেছে পেরিয়ে।

কাটিআম ২৭/১০/২০২০