জীবনের সংজ্ঞা






ক্লাস থ্রিতে পড়া একটি শিশুকে যদি জিজ্ঞাসা করা হয়! জীবন মানে কি ? সে বলবে জল, কারণ সে মাষ্টার মশাইদের মুখে শুনেছে জলের অপর নাম হল “জীবন”।

ঠিক একই প্রশ্ন যদি ক্লাস ফাইভে পড়া কোন ছাত্রছাত্রীকে জিজ্ঞাসা করা হয়! জীবন মানে কি ? সে হা করে তাকিয়ে থাকবে! ভাববে এটা আবার কেমন প্রশ্ন ?

ঠিক একই প্রশ্ন যদি মাধ্যমিক বা উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের করা হয়, তবে তারা বইতে যা পড়েছে তাই উত্তর দেবে।

এস.এস.সি পাশ করা পরীক্ষার্থীকে যদি প্রশ্ন করা হয়,! জীবন মানে কি ? সে বলবে- পড়াশুনা করা,খেলাধুলা করা, বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেওয়া,বিভিন্ন জায়গা ঘুরে বেড়ানো। কিন্তু অনার্স শেষ করার পরে যদি ঐ মানুষটাকে প্রশ্ন করা হয়! আচ্ছা জীবন মানে কি ??

সে বলবে- জীবন সে-তো খুবই কঠিন #বাস্তব! নির্দিষ্ট সংজ্ঞা কিভাবে দেবো,শুধু এতোটুকুই বলবো-জীবন মানে উচ্চ শিক্ষিত হয়েও চাকরি না পাওয়ার ভীষণ ভীষণ যন্ত্রনা।






সংসার জীবনের হালধরা মানুষটাকে যদি প্রশ্ন করা হয়! বলুন তো #জীবন মানে কি ? সে হাসতে হাসতে বলবে, রোজ কাজের উদ্দেশ্যে সকালে বেরিয়ে যাওয়া আর সন্ধ্যা বেলায় ঘরে ফেরা। মাস শেষে যে টাকার অংকটা পাই তাইদিয়ে পরিবারের সকল মানুষের মুখে হাসি ফোটানোটাই হল প্রকৃত পক্ষে জীবন।

আর একজন বৃদ্ধের কাছে যদি প্রশ্ন করা হয়! জীবনের মানে কি ? তিনি চশমাটার গ্লাসে ফুঁক দিয়ে বলবেন, জীবন মানে চশমা ছাড়া সবেতেই ঝাপসা দেখাই বাবা….।

ক্ষনিকের এই জীবন নিয়ে আমাদের কত আয়োজন তাই না। বহুমুখী এই জীবনের সংজ্ঞাটা সবাই নিজের মতো করে দিতে পারে। তবে বার্ধক্যের সাথে সাথে নিজের জীবনের সংজ্ঞটাও পরিবর্তন হয়ে যায়। তবে আমাদের অনেকের কাছে #জীবনের সংজ্ঞাটা খুবই ছোট। আজ ঘুমিয়ে গেলে,আগামীকালের ভোরটা আর নাও দেখতে পারি!!

আবার আমাদের বয়স যখন 40 বছর পার হয় তখন উচ্চ শিক্ষিত আর নিম্ন শিক্ষিত সবাই সমান, বয়স যখন 50 বছর পার হয় তখন কালো ফর্সা সবই সমান,কার চেহারা সুন্দর,দেখতে কে স্মার্ট এটা নিয়ে আর কেউ ভাবেনা…!! বয়স যখন 60 বছর পার হয় তখন উচ্চ পজিশনে চাকুরী আর নিম্ন পজিশনে চাকুরী এটা আর কোন ব্যাপারই নয়!! এমনকি একজন পিয়নও অবসরে যাওয়া বসের দিকে তাকায়না…!! বয়স যখন 70 বছর তখন বড় ফ্ল্যাট,বড় বাড়ি কোন গর্বের বিষয় নয় বরং বাড়ি বড় হলে সেটা মেইনটেইন করাই কঠিন,
তখন ছোট একটি রুম হলেই চলে…!! বয়স যখন 80 বছর তখন টাকা থাকলে যা,,না থাকলেও তা। টাকা খরচ করার ইচ্ছা হলে সেটা খরচ করার জায়গাও খুঁজে পাওয়া যায় না…!! বয়স যখন 90 বছর আমাদের ঘুমানো আর জেগে থাকা একই……. জেগে ওঠার পর কি করবো #আমরা নিজেও জানিনা…!! বয়স যখন 100 বছর তখন আমাদের বেঁচে থাকা আর বেঁচে না থাকা এতে কিছুই যায় আসে না। পৃথিবীবাসী আমাদেরকে নিয়ে আর ভাবেননা…!






জীবনের মানে টা এতটুকুই… জীবনের সংজ্ঞাটা এতোটুকুই..এর বেশি কিছুই না… এতো চাপ নিয়ে, লোভ করে, মানুষের ক্ষতি করে লাভ কি ??? নিজ নিজ জায়গা থেকে জীবনটা উপভোগ করা উচিত, অন্যের ক্ষতি করা থেকে বিরত থাকা উচিত, সময়টা ভালো কাজে লাগানো উচিত, পৃথিবীটা সকলের জন্য সুন্দর হবে। এত উচ্চাকাঙ্ক্ষা আশা সবকিছুরই পরিসমাপ্তি ঘটে এই অতি অল্প সময়ের মধ্যে!!

——-সংগৃহীত——