Category Archives: EDUCATION

মার্টিন লুথার কিং

এম. নেপোলিয়ন টুডু

ধারতী জাকাতরেন নানাহুনৗর জাতিয়া: আপান আপিন জাতিয়ৗরী উৎনৗও সেদ্‌বন কয়গ্‌ লেখান,আডিলেকান ঘটন গেবন পান্তেঞামা। ঝতরেগে মিদ্‌ পিড়হি তায়ম আর মিদ্‌টাং পিড়হি রেনা: লাহান্তি ঞেলঞাম আকানা। সাঁওতা রেনা: সুসাৗর সাঁওসাঁওতে জাতিয়ৗরী দাড়ে কেটেজ চালাও আকানা। ভাব্‌না রেনা: ভেগার, ধরম রেনা: হাটিঞ, গাঁওতা করেনা: ভেপেগেদ্‌ ঝতম কওয়া: গে তাঁহেকানা। মেনখান নওয়া কদ অকাহঁ বাং জাঁগে আকানা।






তবেখান ঝতম জাতিরেগে অক্তনাপিত মিদ্‌বার মানমি বঁগা লেকাক ওফেল আকানা। যাঁহায় কওয়া: তারেন দাড়েতে,উসুল ঠাঁও দ হামেট সারি আকানা। পাসনাও আকানা ধারতী জাকাত জাতিয়ারী উপরুম। আপনার আকাদাক ধারতীরেন আয়মা মানমী কগে উনকুয়া: পারসী, সাঁওহেদ্‌ ,ধরম আর আরিচালি। তাড়াম আকাদাক উনকুয়া: উদু: হর ডাহার তে।






নংকাগে মিদ্‌ চাঁদোবঁগা বারাক মানমি দয় তাঁহেকানা – মার্টিন লুথার কিং জুনিয়র। হেঁদে হড়রেন মিদ্‌ জাজিলমান জুলু: ইপিল। যাঁহা অক্তরে উনিয়া: জানাম, উনদ আমেরিকা রেন হেঁদে হারতা হড় চেতান নাহাচার দ বাং সাহাও গান: লেকা। আর নওয়া ক রডজ কচলন ঞেল ঞেলতেগে উনিদয় হারালেনা। আঙচ লেদায় আপনার জাতিয়া: শাসেৎ রেনা: দুখালি হমর। কিরয়া লেদায় নাগাম তেয়ার লাগিদ্‌।






বুঝাও লেদায় কুকমু সারি লাগিদ্‌ সেচেদ্‌ গে মারাং সাপাব্‌ কানা। অনাতে হারকেৎ শাসেৎ দেয়াকাতে, হামেট লেদায় সেচেদ্‌ রেনা: লাফাং থক্‌। আরজাও লেআয় Ph.D ডিগ্রি। আড়গো লেনায় রাজআরি রেহঁ।অনা তায়ম গাঁওতা বেরেদ্‌ কাতে এতহব্‌ লেদায় হেঁদে হড়া: আইধার ঞাম লাগিদ্‌ তোঁগে লৗড়হৗই। মচা খনা: তাকের ওঁডোক লেনতায়া আপনার মানমি লাগিদ্‌ নিরড় আড়াং – “I have a dream”.






জিয়ন রেনা: লেখা সুমুং দিনে বাঞ্চাও লেনা। অনা মুদ্‌রেগে যা উডৗং এ কামিলেআ,অনা দিসমরেনা: সাঁওতারি চিতৗর গেয় বদল লেআ। সুমুং ৩৯ সেরমা উমের রেগে ইঁড়িজ লেনতায়া জিউয়ি বাতি। ইনৗ মুদ্‌রেগেয় হামেট লেআ নোবেল শান্তি পুরস্কার (১৯৬৪)। বদল দাড়েয়াদ্‌ তাঁহেদ্‌ নিগ্রো কওয়া: মলং অলং । যাঁহা রেনা: অর্জগে নিতো: সামাজিক,অর্থনৈতিক বনদলে আগু কাওয়াদ্‌ কওয়া। রাজআরি,খেলোন্ড, সিনেমা এমান রেহঁ সমান তে আকওয়া: পারুখিয়ৗ দুরীব্‌ ক সদর সামাং দাড়েয়া: কানা।






নিতো: ভারত দিসম রে, আবো সান্তাড় কওয়া: আইধৗর আঁদোড় হঁ ঠিক্‌ নংকা গে। আবোরেন সমাজ দরদিয়ৗ,সাঁওতা সুসারিয়ৗ কওয়া: কাজাগ্‌ কামিহরা হঁ লেতাড় আকানা। আতাং আকানা আয়মা কুড়াইগে। লাহান্তি আকানা পারসি , সাঁওহেদ্ সাঁওতে জানাম পৗরসি তে অলঃ পাড়হাও রেনাঃ । ইঞা: গৗহির পৗতয়ৗউ,সান্তাড় কওয়াগ্ অনা সুলুক দিনদ আডি সুররে।






উইহার ঞাম কাতে আবোরেন আঁগিল বিরৗদৗলী, বীরবান্টা ক , হিরিজ্ পৗসর কামিহরা ক হৗরসামটাও হোয়োঃ তাবনা। তেবা: তিয়োগ্‌ কওয়াবন – মারাংবুরু, জাহেরআয়ো, মড়েক তুরুয় ক। সাঁওতা সৗরয়ৗড় রেনাঃ সঁধাড়বন মহকাও অচয়া যুয়ৗন কওয়াঃ অন্তর জিউয়িরে।পান্তে ঞাম কগেয়াবন আবো সান্তাড় বাখোলরেনরেন শায় শায় ‘মার্টিন লুথার কিং ‘।

© এম. নেপোলিয়ন টুডু।

সাধারণ বিজ্ঞানের যে ১০টি প্রশ্ন প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় প্রায়ই আসে

সাধারণ বিজ্ঞানের যে ১০টি প্রশ্ন প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় প্রায়ই এসে থাকে; আর আমরা প্রায়ই ভুল করে থাকি পাশাপাশি রেখে খেয়াল করে ভালোভাবে না পড়ার কারণে-

১। কোন উদ্ভিদের পাতা থেকে গাছ জন্মায়? উঃ- পাথরকুচির।

২। কোন উদ্ভিদের কাণ্ড রূপান্তরিত হয়ে পাতার কাজ করে? উঃ- ফণিমনসা। (*খেয়াল করুনঃ একটি “পাতা থেকে গাছ জন্মায়”; অন্যটি “কাণ্ড রূপান্তরিত হয়ে পাতার কাজ করে”).

৩। কোনটি রূপান্তরিত কাণ্ড? উঃ- পেঁয়াজ।

৪। কোনটি রূপান্তরিত মূল? উঃ- মিষ্টি আলু। (*খেয়াল করুনঃ একটি ” রূপান্তরিত কাণ্ড”; অন্যটি “রূপান্তরিত মূল”).

৫। যে ধাতু স্বাভাবিক অবস্থায় তরল থাকে? উঃ- পারদ

৬। যে অধাতু স্বাভাবিক অবস্থায় তরল থাকে? উঃ- ব্রোমিন। (*খেয়াল করুনঃ একটি “ধাতু”; অন্যটি “অধাতু”).

৭। পৃথিবী তৈরির প্রধান উপাদান কোনটি? উঃ- সিলিকন।

৮। পৃথিবী পৃষ্ঠে /ভূপৃষ্ঠে কোন ধাতু বেশি পাওয়া যায়? উঃ- অ্যালুমিনিয়াম।

৯। পৃথিবী পৃষ্ঠে যে মৌলিক পদার্থ/মৌলিক গ্যাস বেশি পাওয়া যায়? উঃ- অক্সিজেন।

১০। বায়ুমণ্ডলে যে মৌলিক পদার্থ/মৌলিক গ্যাস বেশি পাওয়া যায়-উঃ নাইট্রোজেন।

অন্যের সমালোচনার আগে নিজের মনকে পরিষ্কার করা জরুরী

নব বিবাহিত দম্পতি নতুন বাসা নিয়েছে। পরদিন সকালে যখন তারা নাস্তা করছিলো,মেয়েটি জানালা দিয়ে পাশের বাড়ির দিকে তাকিয়ে ছাদে দেখতে পেলো কাপড় শুকাতে দিয়েছে ঐ বাড়ির মহিলা। মেয়েটি বলে উঠলো, কাপড় গুলো পরিস্কার হয়নি, ‘ঐ বাসার মহিলা ভালো করে কাপড় ধুতে জানেনা। তার মনে হয় ভালো কোন কাপড় কাচার সাবান দরকার’।

মেয়েটির স্বামী সেই দিকে তাকালো,কিন্তু নিশ্চুপ রইলো। যতবারই পাশের বাড়ির মহিলা কাপড় শুকাতে দিতো, ততবারই এই মেয়েটি একই মন্তব্য করতো।

মাসখানেক পরে সেই বাড়িতে সুন্দর পরিস্কার কাপড় শুকানোর জন্য ঝুলতে দেখে মেয়েটি অবাক হয়ে তার স্বামীকে বললো,”দেখো, অবশেষে উনি শিখেছেন কিভাবে ঠিক ভাবে কাপড় ধুতে হয়। আমি তো ভাবছি কে তাকে শেখালো”।

তখন স্বামী বলে উঠলো,”শুনো, আজ ভোরে আমি আমাদের জানালার কাঁচ পরিস্কার করেছি”।

আমাদের জীবনটাও এমনই…..
আমরা কোন কিছু দেখার সময় যা দেখি তা নির্ভর করে আমাদের সেই জানালার পরিচ্ছন্নতার উপর যা দিয়ে আমরা দেখি। কোন সমালোচনা করার আগে আমাদের নিজের মনের অবস্থাটা খেয়াল করে নেওয়া প্রয়োজন।

নিজেদেরকে প্রশ্ন করা দরকার যে আমরা কি তার মাঝে ভালো কোন কিছু দেখতে চাই আদৌ? নাকি মানুষটার দিকে তাকাচ্ছি শুধু তার ভুল গুলো খুঁজে বের করার জন্য।

(সংগৃহিত)

হারিয়ে গেছে


বীরেন্দ্র নাথ কিস্কু

হারিয়ে গেছে…….
আজ অনেক দিন আগে
যা ছিল সেদিন, সবার হৃদয় মাঝে।
হণ্য হয়ে খুঁজেছি কত, সবার হৃদয় মাঝারে,
কি যে হলো, কোথায় গেলো, এই ভব সাগরে
তাকে ছাড়া অশ্রু জলে জীবন গেলো ভেসে।

এখানে ,সেখানে, কোনখানেই নেই আজ তার দেখা
এ যেন চাঁদ ছাড়া এক পূর্ণিমার কথা ভাবা,
কোথা থেকে আজ কী যে হলো
মানুষ আজ হয়েছে বিনা মান হুশ।
পাপিষ্ট, দুর্বৃততায়নদের ক্ষমতার লালসায়,
নিভৃতে, রজনী কাঁদে হীনমন্যতায়।

আজও টিম টিম করে জ্বলে মোমবাতির আলো
কত এলো, আর কত যে গেলো,
তবুও আজও আলো ছড়াই এই দীন কুটিরে,
এক দিন আসবে সবাই , বসবে মাদুর পেতে
ভুলে যাবে সব ভেদাভেদ, সংকীর্ণ প্রাচীর
ভালোবাসায় ভেসে যাবে, উঠবে সবাই হেসে।

CONVERSATION WITH RADIO ARTIST ARSU MURMU

LIVE CONVERSATION WITH RADIO ARTIST ARSU MURMU, INTERVIEW BY DASARATHI MAJHI, EDITOR OF SANTALI MAGAZINE ”TARWARI”

CONVERSATION WITH RADIO ARTIST ARSU MURMU.

তেলকুপি বারনি রেয়াঃ নাগাম আর নাহাঃ

তেলকুপি বারনি রেয়াঃ নাগাম আর নাহাঃ

CONVERSATION ABOUT TELKUPI BARNI WITH BEL TUDU THE SECRETARY OF TELKUPI BARNI

১২00 কিলোমিটার স্কুটার চালিয়ে গর্ভবতী স্ত্রীকে পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছালেন স্বামী

স্বামী ক্লাস এইট প্লাস। তিনি একটা ক্যাটারিং এ রান্নার কাজ করেন। তার স্ত্রী ২০১৯ সাল থেকে Madhya Pradesh board of secondary education এর অধীনে ডি. এল. এড. এর লেখাপড়া করছেন। পরীক্ষার সিট পড়েছে বাড়ি ঝাড়খণ্ডের গোড্ডা শহর থেকে ১২০০ কিলোমিটার দূরে মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিয়রে। স্বামী চান, তিনি লেখাপড়া শিখতে পারেননি কিন্তু স্ত্রী যেন পরীক্ষায় পাশ করে বিদ্যালয় শিক্ষিকা হতে পারেন।

এসব জিনিস তো সিনেমায় হয়! স্ত্রী গর্ভবতী। যান চলাচল প্রায় নেই বললেই চলে! কিন্তু কিকরে যাবেন পরীক্ষা দিতে? স্ত্রী দ্বিধাগ্রস্ত, গর্ভবতী অবস্থায় কি এতটা দূরত্ব যাওয়া উচিত! কিন্তু স্বামী চান না, পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছাতে না পারার কারণে স্ত্রীর কোনো শিক্ষাবর্ষ নষ্ট হোক! স্বামী স্ত্রী নিজেদের গহনা বের করে মর্টগেজ দিলেন, দশ হাজার টাকার বেশী এল না! কি করে ভাড়া করবেন গাড়ি? পরীক্ষা দিতে গিয়ে থাকার ব্যবস্থা করবেন কিভাবে?, স্ত্রীর মাথায় হাত! এসব জিনিস শুধু সিনেমাতেই হয়!

২৮ আগস্ট ২০২০ তারিখে স্বামী বের করলেন শিবরাত্রির সলতে — পুরানো স্কুটার। স্ত্রীকে বললেন, চল। স্ত্রী “ভগবানের ভরসায়” চেপে বসলেন দ্বিচক্রযানে। স্বামীকে জড়িয়ে। পথে এবড়োখেবড়ো রাস্তা। তার ওপরে প্রবল বৃষ্টি! একটাই রেনকোট! স্বামী স্ত্রী একটা গাছের তলায় আশ্রয় নিলেন। আড়াই ঘন্টা ধরে। বৃষ্টিস্নাত, তবু যাত্রা থামালেন না। মাঝে কোথাও একটা হোটেলে আশ্রয়, কোথাও আবার পেট্রোল পাম্পে রাত কাটানো…..সব শেষে দুই দিন পরে ৩০ তারিখে পরীক্ষাকেন্দ্রে এসে পৌঁছলেন স্বামী স্ত্রী। সুস্থ শরীরে।

আলট্রাসাউন্ড করে দেখা গেছে গর্ভস্থ সন্তানও সুস্থ আছে। এসব জিনিস বোধহয় সিনেমাতেই হয়! এবার লক্ষ্য শুধু সফল ভাবে পরীক্ষা দেওয়ার। স্বামী লকডাউনে দীর্ঘদিন কাজহারা। তিনি চান, স্ত্রী চান নিজের যোগ্যতায় দ্রুত আত্মনির্ভর হয়ে ওঠে। স্ত্রীর প্রিয়জন বলতে সেভাবে কেউ নেই! তিনি স্বামীর সাহসিকতায় অবাক। এত দুর্যোগ সহ্য স্ত্রীর জন্য ক’জন স্বামী করে, তাও স্ত্রীকে স্বনির্ভর করতে! স্বামীর প্রতি ভালোবাসা কৃতজ্ঞতা ঝরে পড়ছে স্ত্রীর চোখেমুখে, কথাবার্তায়। এরকম জিনিস কি শুধু তাহলে সিনেমাতেই হয়? না, এরকম ঘটনা বাস্তবেও ঘটে। কঠোর বাস্তবের মাটিতে দাঁড়িয়ে ধনঞ্জয় মাঝি এবং সোনালি হেমব্রম দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন যে জীবনে আত্মপ্রতিষ্ঠার তাগিদ থাকলে স্বামী স্ত্রী একসাথে কতটা পথ অতিক্রম করতে পারে! কতটা ঝঞ্ঝা অতিক্রম করতে পারে! এবং সবশেষে সফল হতে পারে।

পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর মধ্যপ্রদেশ থেকে ঝাড়খণ্ড ফিরে আসার জন্য এক কর্পোরেট সংস্থার সহযোগিতায় বিমানের টিকিটের বন্দোবস্ত করে দেওয়া হয়েছে এবং ওনারা ১৬ সেপ্টেম্বর ঝাড়খন্ডে ফিরে আসবেন।

ᱵᱷᱚᱨᱥᱟ

Poem ᱵᱷᱚᱨᱥᱟ ✒️✒️✒️ ᱥᱩᱢᱤᱛᱟ ᱴᱩᱰᱩ

ᱫᱷᱟ.ᱨᱛᱤ ᱢᱟ ᱞᱤᱞᱤ-ᱵᱤᱪᱷᱤ
ᱢᱟᱱᱣᱟ ᱠᱚᱣᱟᱜ ᱵᱷᱚᱨᱥᱟ,
ᱢᱟᱱᱣᱟ ᱥᱟᱜᱟᱞ-ᱥᱟᱜᱟᱞ
ᱦᱚᱭ ᱡᱤᱣᱤ ᱵᱷᱚᱨᱥᱟ l

ᱡᱤᱭᱟ.ᱞᱤ ᱠᱚ ᱦᱮᱸᱥᱮᱡ-ᱥᱮᱠᱨᱮᱡ
ᱫᱟᱨᱮ-ᱱᱟ.ᱲᱤ ᱵᱷᱚᱨᱥᱟ,
ᱫᱟᱨᱮ-ᱱᱟ.ᱲᱤ ᱞᱮᱜᱮᱡ-ᱞᱮᱜᱮᱡ
ᱚᱛ ᱦᱟᱥᱟ ᱵᱷᱚᱨᱥᱟ l

ᱫᱟᱜ ᱟᱛᱩᱜ ᱞᱮᱜᱮᱢ-ᱞᱮᱜᱮᱢ
ᱱᱟ.ᱭ-ᱱᱟᱞᱟ ᱵᱷᱚᱨᱥᱟ,

ᱦᱟᱠᱳ-ᱠᱟᱴᱠᱳᱢ ᱪᱷᱤᱞ-ᱵᱤᱞ ᱨᱟᱜᱟᱢ-ᱨᱩᱜᱩᱢ
ᱫᱟᱜ ᱵᱷᱚᱨᱥᱟ l

ᱡᱟᱱᱟᱢ ᱟᱲᱟᱝ ᱴᱟᱲᱟᱝ-ᱴᱟᱲᱟᱝ
ᱡᱟᱱᱟᱢ ᱟᱭᱳ ᱵᱷᱚᱨᱥᱟ,
ᱥᱚᱢᱟᱡᱽ ᱛᱟᱵᱳᱱ ᱨᱤᱞᱟ.-ᱢᱟᱞᱟ
ᱟᱛᱳ ᱢᱚᱲᱮᱠᱳ ᱵᱷᱚᱨᱥᱟ l

ᱥᱚᱦᱚᱨ-ᱵᱟᱡᱟᱨ ᱫᱟᱲᱟᱱ ᱞᱟ.ᱜᱤᱫ
ᱴᱟᱠᱟ-ᱯᱳᱭᱥᱟ ᱵᱷᱚᱨᱥᱟ,
ᱥᱳᱱᱟ ᱫᱤᱥᱳᱢ ᱛᱟᱵᱳᱱ
ᱵᱳᱝᱜᱟ-ᱵᱳᱨᱳ ᱵᱷᱚᱨᱥᱟ l

ᱚᱱᱟᱛᱮᱜᱮ ᱡᱷᱚᱛᱚ ᱠᱷᱚᱱ
ᱫᱷᱟ.ᱨᱛᱤ ᱯᱩᱨᱤ ᱥᱚᱨᱮᱥᱟ,
ᱱᱚᱣᱟ ᱨᱮᱭᱟᱜ ᱵᱩᱜᱤ-ᱵᱟ.ᱲᱤᱡ
ᱟᱵᱚ ᱨᱮᱜᱮ ᱵᱷᱚᱨᱥᱟ. l

ᱛᱩᱢᱟ.ᱞᱤᱡᱺ ᱜᱚᱱᱮᱥ ᱢᱟᱨᱟᱱᱰᱤ, ᱯᱩᱨᱩᱞᱤᱭᱟ.

ᱢᱤᱥᱚᱱ ᱚᱞᱪᱤᱠᱤ ᱥᱟᱨ ᱥᱟᱹᱜᱩᱱ ᱞᱟᱹᱜᱤᱫ ᱥᱟᱦᱤᱛᱭᱚ ᱟᱠᱟᱰᱮᱹᱢᱤ ᱥᱤᱨᱯᱟᱹ ᱦᱟᱢᱮᱹᱴᱤᱭᱟᱹ ᱢᱟᱹᱱ ᱯᱚᱨᱤᱢᱚᱞ ᱦᱟᱸᱥᱫᱟᱼᱟᱜ ᱱᱟᱣᱟ ᱯᱟᱹᱣᱲᱤ

ᱵᱷᱟᱨᱚᱛ ᱫᱤᱥᱚᱢ ᱨᱮᱭᱟᱜ ᱯᱚᱪᱷᱤᱢ ᱵᱟᱝᱞᱟ ᱯᱚᱱᱚᱛ; ᱱᱚᱣᱟ ᱯᱚᱪᱷᱤᱢ ᱵᱟᱝᱞᱟ ᱨᱮᱜᱮ ᱥᱟᱱᱛᱟᱲᱤ ᱥᱟᱶᱦᱮᱫ ᱨᱮᱱ ᱡᱳᱞᱳᱜ ᱤᱯᱤᱞ ᱞᱮᱠᱟᱛᱮᱠᱤᱱ ᱳᱯᱮᱹᱞ ᱞᱮᱱᱟ ᱠᱚᱵᱤ ᱥᱟᱨᱚᱫᱟ ᱯᱨᱚᱥᱟᱫᱽ ᱠᱤᱥᱠᱩ, ᱠᱚᱵᱤᱜᱩᱨᱩ ᱥᱟᱹᱫᱷᱩ ᱨᱟᱢᱪᱟᱸᱫᱽ ᱢᱩᱨᱢᱩ ᱟᱨ ᱱᱚᱣᱟ ᱯᱚᱪᱷᱤᱢ ᱵᱟᱝᱞᱟ ᱯᱚᱱᱚᱛ ᱨᱮᱭᱟᱜ ᱯᱩᱨᱩᱞᱤᱭᱟᱹ ᱡᱤᱞᱟᱹ ᱨᱮᱜᱮ ᱥᱟᱱᱟᱢ ᱠᱷᱚᱱ ᱯᱳᱹᱭᱞᱳᱛᱮ ᱚᱞᱪᱤᱠᱤ ᱥᱤᱨᱡᱚᱱᱤᱭᱟᱹ ᱯᱚᱱᱰᱤᱛ ᱨᱚᱜᱷᱩᱱᱟᱛᱷ ᱢᱩᱨᱢᱩ ᱫᱚ ᱵᱮᱝᱜᱚᱞ ᱥᱚᱨᱠᱟᱨ ᱯᱟᱦᱴᱟ ᱠᱷᱚᱱ ᱢᱟᱹᱱ ᱥᱟᱨᱦᱟᱣᱱᱟᱭ ᱟᱛᱟᱝ ᱞᱮᱫᱼᱟ᱾


ᱤᱱᱟᱹᱛᱟᱭᱱᱚᱢ ᱱᱚᱣᱟ ᱯᱚᱪᱷᱤᱢ ᱵᱟᱝᱞᱟ ᱨᱮᱜᱮ ᱯᱳᱭᱞᱳᱛᱮ ᱥᱟᱱᱛᱟᱲᱤ ᱯᱟᱹᱨᱥᱤ ᱫᱚ ᱫᱚᱥᱟᱨ ᱚᱯᱷᱤᱥᱤᱭᱟᱞ ᱯᱟᱹᱨᱥᱤ ᱞᱮᱠᱟᱛᱮ ᱵᱮᱝᱜᱚᱞ ᱥᱚᱨᱠᱟᱨᱼᱮ ᱢᱟᱱᱟᱣ ᱵᱟᱛᱟᱣ ᱟᱠᱟᱫᱼᱟ ᱟᱨ ᱥᱟᱱᱛᱟᱲᱤ ᱛᱟᱞᱢᱟᱛᱮ ᱒᱐᱐᱘ ᱥᱟᱞ ᱠᱷᱚᱱ ᱚᱞ ᱯᱟᱲᱦᱟᱣ ᱦᱚᱸᱭ ᱮᱛᱚᱦᱚᱵ ᱟᱠᱟᱫᱛᱮ ᱱᱮᱥᱜᱮ ᱒᱐᱒᱐ ᱥᱟᱞᱨᱮ ᱥᱟᱱᱛᱟᱲ ᱯᱟᱹᱴᱷᱩᱣᱟᱹᱠᱳ ᱥᱟᱱᱛᱟᱲᱤᱛᱮ ᱜᱮᱞᱵᱟᱨ ᱪᱟᱱᱟᱪᱠᱳ ᱯᱟᱲᱦᱟᱣ ᱯᱩᱨᱟᱹᱣ ᱠᱮᱫᱼᱟ᱾ ᱱᱤᱭᱟᱹᱛᱟᱭᱱᱚᱢ ᱟᱫᱚ ᱡᱮᱜᱮᱫ ᱵᱤᱨᱫᱟᱹᱜᱟᱲᱷᱨᱮ ᱥᱟᱱᱛᱟᱲᱤ ᱛᱟᱞᱢᱟᱛᱮ ᱚᱞᱚᱜ ᱯᱚᱲᱦᱚᱱ ᱮᱛᱚᱦᱚᱵᱚᱜᱼᱟ᱾


ᱫᱷᱟᱹᱨᱛᱤ ᱡᱟᱠᱟᱛ ᱨᱮᱱ ᱥᱟᱱᱟᱢ ᱦᱚᱲᱠᱳ ᱵᱟᱰᱟᱭᱟ ᱑᱙᱒᱕ ᱥᱟᱞᱨᱮ ᱳᱰᱤᱥᱟ ᱯᱚᱱᱚᱛ ᱢᱚᱭᱩᱨᱵᱷᱚᱧᱡᱽ ᱡᱤᱞᱟᱹ ᱨᱮᱱ ᱯᱚᱱᱰᱤᱛ ᱨᱚᱜᱷᱩᱱᱟᱛᱷ ᱢᱩᱨᱢᱩ ᱚᱞᱪᱤᱠᱤᱭ ᱥᱤᱨᱡᱚᱱ ᱞᱮᱫᱼᱟ ᱟᱨ ᱚᱱᱟ ᱚᱞᱪᱤᱠᱤ ᱨᱮᱭᱟᱜ ᱩᱢᱮᱹᱨ ᱫᱟᱨᱟᱭᱠᱟᱱ ᱒᱐᱑᱕ ᱥᱟᱞ ᱨᱮ ᱑᱐᱐ (ᱢᱤᱫ ᱥᱟᱭ) ᱥᱮᱨᱢᱟᱭ ᱯᱩᱨᱟᱹᱣᱼᱟ᱾ ᱮᱱᱛᱮᱨᱮᱦᱚᱸ ᱳᱰᱤᱥᱟ ᱯᱚᱱᱚᱛ, ᱡᱷᱟᱨᱠᱷᱚᱱᱰ ᱯᱚᱱᱚᱛ, ᱵᱤᱦᱟᱨ ᱯᱚᱱᱚᱛᱠᱳᱨᱮ ᱟᱭᱢᱟ ᱥᱟᱸᱜᱮ ᱥᱟᱸᱜᱮ ᱥᱟᱱᱛᱟᱲ ᱢᱮᱱᱟᱜᱠᱳ ᱨᱮᱦᱚᱸ ᱥᱟᱱᱛᱟᱲᱤ ᱛᱟᱞᱢᱟᱛᱮ ᱚᱞ ᱯᱟᱲᱦᱟᱣ ᱥᱚᱨᱠᱟᱨ ᱵᱟᱝᱼᱮ ᱮᱛᱚᱦᱚᱵ ᱟᱠᱟᱫᱼᱟ᱾


ᱴᱷᱤᱠ ᱱᱚᱝᱠᱟᱱ ᱚᱠᱛᱚᱨᱮ ᱫᱤᱞᱞᱤ ᱥᱟᱦᱤᱛᱭᱚ ᱟᱠᱟᱰᱮᱢᱤ ᱨᱮᱭᱟᱜ ᱡᱩᱣᱟᱹᱱ ᱚᱱᱚᱞᱤᱭᱟᱹ ᱥᱤᱨᱯᱟᱹ ᱦᱟᱢᱮᱹᱴᱟᱱ ᱚᱱᱚᱞᱤᱭᱟᱹ ᱢᱟᱹᱱ ᱯᱚᱨᱤᱢᱚᱞ ᱦᱟᱸᱥᱫᱟᱼᱟᱜ ᱥᱟᱯᱲᱟᱣᱛᱮᱛᱮ ᱯᱟᱨᱚᱢᱮᱱ ᱡᱮᱜᱮᱫ ᱡᱟᱠᱟᱛ ᱟᱹᱫᱤᱵᱟᱹᱥᱤ ᱢᱟᱦᱟ ᱦᱤᱞᱳᱜ ᱩᱪᱷᱟᱹᱱᱮᱱᱟ ᱢᱤᱫ ᱱᱟᱣᱟ ᱥᱟᱱᱛᱟᱲᱤ ᱣᱮᱵᱽᱥᱟᱭᱤᱴ᱾
ᱚᱱᱚᱞᱤᱭᱟᱹ ᱯᱚᱨᱤᱢᱚᱞ ᱦᱟᱸᱥᱫᱟᱼᱟᱜ ᱠᱩᱨᱩᱢᱩᱴᱩᱛᱮ ᱩᱪᱷᱟᱹᱱᱮᱱ ᱣᱮᱵᱽᱥᱟᱭᱤᱴ ᱨᱮᱭᱟᱜ ᱧᱩᱛᱩᱢ ᱫᱚ ᱦᱳᱭᱳᱜ ᱠᱟᱱᱟ ᱯᱟᱨᱳᱠᱷᱤᱭᱟᱹ᱾ ᱚᱱᱟᱨᱮᱫᱚ ᱜᱟᱢᱟᱢ, ᱠᱟᱹᱦᱱᱤ, ᱠᱚᱢᱤᱠᱥ, ᱜᱟᱭᱟᱱ, ᱚᱱᱚᱞ, ᱚᱱᱚᱬᱦᱮ ᱟᱨ ᱥᱟᱸᱜᱷᱟᱨ ᱠᱟᱹᱦᱱᱤᱠᱳ ᱩᱪᱷᱟᱹᱱ ᱟᱠᱟᱱᱟ᱾


ᱱᱤᱛ ᱦᱟᱹᱵᱤᱡᱛᱮ ᱡᱟᱸᱦᱟᱭ ᱚᱱᱚᱞᱤᱭᱟᱹ ᱠᱚᱣᱟᱜ ᱚᱞᱠᱳ ᱩᱪᱷᱟᱹᱱ ᱟᱠᱟᱱᱟ ᱳᱱᱠᱳ ᱫᱚ ᱠᱳ ᱦᱳᱭᱳᱜ ᱠᱟᱱᱟᱼ, ᱯᱚᱨᱤᱢᱚᱞ ᱦᱟᱸᱥᱫᱟ, ᱫᱟᱥᱚᱨᱚᱛᱷᱤ ᱢᱟᱹᱡᱷᱤ, ᱥᱩᱠᱪᱟᱸᱫᱽ ᱥᱚᱨᱮᱱ, ᱥᱩᱵᱩᱫᱤᱭᱟᱹ ᱢᱩᱨᱢᱩ, ᱵᱤᱨᱮᱱᱫᱨᱚᱱᱟᱛᱷ ᱠᱤᱥᱠᱩ, ᱵᱟᱹᱵᱩᱨᱟᱢ ᱠᱤᱥᱠᱩ, ᱚᱧᱡᱚᱞᱤ ᱠᱤᱥᱠᱩ, ᱠᱟᱞᱤᱨᱟᱢ ᱢᱩᱨᱢᱩ, ᱜᱚᱱᱮᱥ ᱢᱟᱨᱟᱱᱰᱤ, ᱚᱡᱚᱭ ᱥᱚᱨᱮᱱ, ᱡᱚᱭ ᱥᱟᱜᱚᱨ ᱢᱩᱨᱢᱩ, ᱥᱨᱤᱯᱚᱛᱤ ᱴᱩᱰᱩ, ᱨᱚᱵᱤᱱᱟᱛᱷ ᱢᱩᱨᱢᱩ, ᱨᱟᱱᱤ ᱢᱩᱨᱢᱩ᱾

https://www.parokhiya.com/


ᱱᱚᱣᱟ ᱯᱟᱨᱳᱠᱷᱤᱭᱟᱹ ᱣᱮᱵᱽᱥᱟᱭᱤᱴ ᱩᱪᱷᱟᱹᱱ ᱠᱟᱛᱮᱫ ᱥᱟᱯᱲᱟᱣᱤᱡ ᱯᱚᱨᱤᱢᱚᱞ ᱦᱟᱸᱥᱫᱟ ᱴᱷᱮᱱᱠᱷᱚᱱ ᱵᱟᱰᱟᱭᱮᱱᱟ ᱢᱮᱱᱛᱮ,  ”ᱱᱚᱣᱟᱫᱚ‌‌ ᱥᱟᱶᱛᱟ ‌ᱥᱟ.ᱲᱤᱢ‌ ᱟᱨ ᱥᱟᱶᱦᱮᱫ ᱢᱩᱨᱟ.ᱭ ᱠᱟᱱᱟ᱾ ᱱᱚᱣᱟᱫᱚ ᱢᱤᱫ ᱯᱟ.ᱨᱥᱤ‌ ᱢᱤᱫ ᱪᱤᱠᱤ ᱨᱮᱭᱟᱜ ᱡᱚᱥᱛᱮ ᱵᱮᱱᱟᱣ ᱟᱠᱟᱱᱟ᱾ ᱱᱚᱰᱮ ᱫᱚ ‌ᱥᱟᱱᱟᱢ ᱥᱟᱶᱦᱮᱛᱤᱭᱟ. ᱥᱟᱶᱦᱮᱫ ᱪᱟᱨᱪᱟ ᱨᱮᱱᱟᱜ ᱫᱟᱣ ᱠᱚ ᱧᱟᱢᱟ ᱾ ᱥᱟᱱᱟᱢᱠᱳ ᱚᱞᱪᱤᱠᱤ ᱥᱤᱠᱷᱟᱹᱣᱠᱳ ᱞᱟᱹᱜᱤᱫᱛᱮ ᱥᱮ ᱢᱤᱥᱚᱱ ᱚᱞᱪᱤᱠᱤ ᱒᱐᱒᱕ ᱥᱟᱠᱥᱮᱹᱥ ᱞᱟᱹᱜᱤᱫᱜᱮ ᱱᱚᱣᱟ ᱯᱟᱹᱣᱲᱤ ᱫᱚᱭ ᱞᱟᱦᱟᱭᱮᱱᱟ᱾”


ᱟᱥ ᱟᱨ ᱯᱟᱹᱛᱭᱟᱹᱣ ᱛᱟᱦᱮᱸᱱ ᱠᱟᱱᱟ ᱱᱚᱣᱟ ᱰᱤᱡᱤᱴᱟᱞ ᱡᱩᱜᱽᱨᱮ ᱮᱴᱟᱜ ᱯᱟᱹᱨᱥᱤ ᱥᱟᱶᱛᱮ ᱥᱟᱱᱛᱟᱲᱤ ᱯᱟᱹᱨᱥᱤ ᱦᱚᱸ ᱯᱟᱱᱛᱮ ᱠᱟᱛᱮᱫ ᱥᱟᱱᱟᱢ ᱞᱮᱠᱟᱱ ᱢᱟᱹᱱᱟᱱ ᱴᱷᱟᱶᱨᱮ ᱥᱮᱴᱮᱨ ᱞᱟᱹᱜᱤᱫ ᱱᱚᱝᱠᱟᱜᱮ ᱥᱟᱱᱟᱢ ᱯᱟᱹᱨᱥᱤ ᱫᱩᱞᱟᱹᱲᱤᱭᱟᱹ ᱯᱟᱹᱨᱥᱤ ᱫᱚᱨᱚᱫᱤᱭᱟᱹ ᱠᱚᱣᱟᱜ ᱜᱚᱲᱚ ᱥᱚᱯᱚᱦᱚᱫ ᱫᱚ ᱥᱟᱨᱟᱵᱮᱲᱟ ᱜᱮ ᱛᱟᱦᱮᱸᱱᱟ᱾

মালালা দিবস

মালালা ইউসুফজাই  একজন সর্বকনিষ্ঠ নোবেল পুরস্কার বিজয়ী। তিনি মানবাধিকারের পক্ষে, বিশেষত উত্তর-পশ্চিম পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনুতে স্বদেশ উপত্যকায় নারী ও শিশুদের শিক্ষার জন্য পরিচিত, যেখানে স্থানীয় তালিবানরা মেয়েদের স্কুলে পড়াশুনা নিষিদ্ধ করেছিল। মালালা ইউসুফজাই তালিবানের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ায় অতঃপরে আন্তর্জাতিক আন্দোলনে পরিণত হয়। এবং পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী শহীদ খাকান আব্বাসি বলেন, মালালা একজন দেশের সর্বাধিক বিশিষ্ট নাগরিক।

মালালা ইউসুফজাই পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখুনার মিনগোরায় একটি পশতুন পরিবারে ১৯৯৭ সালের ১২ জুলাই জন্মগ্রহণ করেন। মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ এবং বেনজির ভুট্টোকে তার রোল মডেল হিসাবে বিবেচনা করে তিনি বিশেষত তাঁর বাবার চিন্তাভাবনা এবং মানবিক কাজের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন। ২০০৯ এর গোড়ার দিকে, যখন তিনি ১১-১২ বছর বয়সে ছিলেন, তিনি বিবিসি উর্দু ছদ্মনামে তার জীবন সম্পর্কিত  একটি ব্লগ লিখেন। পরের গ্রীষ্মে, সাংবাদিক অ্যাডাম বি এলিক এই অঞ্চলে পাকিস্তানি সামরিক বাহিনী হস্তক্ষেপ করায় তার জীবন নিয়ে একটি নিউইয়র্ক টাইমস নথি তৈরি করেছিলেন। তিনি গণমাধ্যমে সাক্ষাত্কার প্রদানের মাধ্যমে সুনাম অর্জন করেছিলেন এবং কর্মী ডেসমন্ড টুটু তাকে আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরষ্কারের জন্য মনোনীত করেছিলেন।

২০১২ সালের ৯ই অক্টোবর, সোয়াট জেলায় পরীক্ষা দেওয়ার পরে, বাড়ি ফেরার সময় একটি বাসে ইউসুফজাই এবং আরও দুটি মেয়েকে মালালার তালিবানের বিরুদ্ধে তৎপরতার প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য তালিবানরা মালালাকে গুলি করে হত্যা করার চেষ্টা করেছিল; বন্দুকধারীরা গুলি করে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় এবং ইউসুফজাই গুলিবিদ্ধ অবস্থায় মাথায় আঘাত লাগে এবং তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন এবং রাওয়ালপিন্ডি ইনস্টিটিউট অফ কার্ডিওলজিতে গুরুতর অবস্থায় ভর্তি করানো হয়। তারপরে তাঁর অবস্থার যথেষ্ট উন্নতি হলে তাকে যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামের কুইন এলিজাবেথ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

 মালালা ইউসুফজাইয়ের এই প্রচেষ্টা গোটা বিশ্বে সমর্থন লাভ করেছিল। জানুয়ারী ২০১৩-তে Deutsche Welle জানায় যে ইউসুফজাই একজন “বিশ্বের সবচেয়ে বিখ্যাত কিশোর”। হত্যার চেষ্টার কয়েক সপ্তাহ পরে, পাকিস্তানের পঞ্চাশজন শীর্ষস্থানীয় মুসলিম আলেমদের একটি দল যারা তাকে হত্যার চেষ্টা করেছিল তাদের বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি হয়। তালিবানদের সরকার, মানবাধিকার সংগঠন এবং নারীবাদী গোষ্ঠীগুলি আন্তর্জাতিকভাবে নিন্দা করে। এর পরেও তালিবান কর্মকর্তারা ইউসুফজাইকে আরেকবার হত্যা করার পরিকল্পনার করেছিল, যা ধর্মীয় বাধ্যবাধকতা হিসাবে ন্যায্য ছিল।

তারপরে, ইউসুফজাই শিক্ষার অধিকারের জন্য বিশিষ্ট কর্মী হয়ে ওঠেন এবং বার্মিংহামে অবস্থিত, শিজা শহীদকে নিয়ে একটি অলাভজনক সংস্থা মালালা তহবিলের সহ-প্রতিষ্ঠা করেছিলেন, এবং ২০১৩ সালে একটি পুস্তক I AM MALALA লেখেন।

২০১২ সালে, তিনি পাকিস্তানের প্রথম জাতীয় যুব শান্তি পুরষ্কার এবং ২০১৩ সাখারভ পুরষ্কার পেয়েছিলেন। ২০১৪ সালে তিনি ভারতের কৈলাশ সত্যার্থীর সাথে ২০১৪ সালের নোবেল শান্তি পুরষ্কারের সহ-প্রাপক ছিলেন। ১৭ বছর বয়সে তিনি সর্বকালের সর্বকনিষ্ঠ নোবেল পুরস্কার বিজয়ী।

২০১৫ সালে, মালালা ইউসুফজাই এর ডকুমেন্টারি ফিল্ম He Named Me Malala অস্কার-শর্টলিস্টে অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল। ২০১৩, ২০১৪ এবং ২০১৫ সালে টাইম ম্যাগাজিন মালালাকে বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তি হিসাবে চিহ্নিত করে। ২০১৭ সালে সবচেয়ে কম বয়সী প্রভাবশালী ব্যক্তি হিসেবে মালালা ইউসুফজাইকে HOUSE OF COMMONS OF CANADA সম্মানে সম্মানিত করা হয় । ইউসুফজাই ইংল্যান্ডের এজবাস্টন উচ্চ বিদ্যালয়ে ২০১৩ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন, এবং অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০২০ সালে দর্শন, রাজনীতি ও অর্থনীতিতে (পিপিই) কলা বিভাগে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন।

« Older Entries